মেয়রকে ট্রাকে বেঁধে শহর ঘোরাল বিক্ষুব্ধ কৃষকরা

নিজেদের দাবি আদায় করতে গিয়ে তুলকালামকাণ্ড করে বসল বিক্ষুব্ধ কৃষকরা। স্থানীয় মেয়রকে অফিস থেকে টেনে এনে গাড়ির সঙ্গে বেঁধে শহর ঘোরাল বিক্ষুব্ধ জনতা।

ঘটনাটি ঘটেছে মেক্সিকোর চিয়াপাস প্রদেশে। ওই প্রদেশের লা মারগারিটাস শহরের মেয়রকে অফিস থেকে টেনে এনে গাড়ির সঙ্গে বেঁধে শহর ঘোরাল একদল বিক্ষুব্ধ কৃষক। এ ঘটনায় জড়িত ১১ জনকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ।

যুক্তরাজ্যভিত্তিক মেট্রো নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার মেয়র জর্জ লুই এসক্যানেডানের অফিসের ঢুকে পড়ে সংখ্যালঘু তোজোবাল যুবকরা। লাঠিসোঁটা নিয়ে এসে তারা মেয়রের অফিসের দরজা ভেঙে ভেতরে ঢুকে পড়ে। তার পর মেয়রকে পাকড়াও করে ধাক্কা দিতে দিতে বাইরে বের করে আনে। এরপর তাকে একটি ট্রাকের সঙ্গে বেঁধে শহরের রাস্তায় টানাতে শুরু করে।

পরিস্থিতি সামাল দিতে রাস্তায় নামে মেয়রের অফিসের কর্মী ও সাধরণ মানুষজন। তাদের চেষ্টাতেই কোনোরকম ভাবে বিক্ষুব্ধ জনতার হাত থেকে ছাড়া পান মেয়র।

মেয়র লুই এসক্যানেডান মেট্রো নিউজকে জানিয়েছেন, ৩টি ট্রাকে চড়ে ৫০-৬০ জন লোক আমার দফতরে এসে ঢুকে পড়ে। তাদের দাবি ক্যাশ ট্রান্সফারের পরিমাণ আরও বাড়াতে হবে। ওরা আমাকে এসে ধরে ধস্তাধস্তি করতে শুরু করে। আমার এক পায়ে দড়ি বেঁধে অফিস থেকে বের করে রাস্তায় নিয়ে যায়। গাড়ির পিছনে বেঁধে টেনে নিয়ে যায়।

সরকারি আইনজীবী জর্জ লুইস ল্যাভেন মেট্রো নিউজকে জানিয়েছেন, বিক্ষুব্ধ জনতার দাবি ছিল আরও কিছু সরকারি সুযোগ দিতে হবে। ডাইরেক্ট ক্যাশ ট্রান্সফারের পরিমাণ বাড়াতে হবে।

প্রসঙ্গত, দালালদের হাত থেকে বাঁচার জন্য ডাইরেক্ট ক্যাশ ট্রান্সফার চালু করেছেন মেক্সিকোর প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড্রেস ম্যানুয়েল লোপেজ ওবরাডোর।

About redianbd

Check Also

আবারও সেই মাছ, জাপান জু’ড়ে সু’নামির আত’ঙ্ক!

একটি বি’রল প্র’জাতির মাছ দে’খে জাপানের মানুষ আ’তঙ্কিত হয়ে প’ড়েছে। তারা মনে ক’রে ওই মাছ-ই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.