সকালে সঙ্গীকে কীভাবে আদর করলে দিন ভালো যায়? জেনে নিন

সদ্য ওঠা সূর্যের আলোয় জানলার পর্দা সরিয়ে সঙ্গীকে প্রথম দেখলেই মনের মধ্যে জমা হয় একগুচ্ছ আবেগ। তখন সঙ্গীকে কাছে পেলে, তাকে আদর করলে দিন শুরু হয় ভরপুর এনার্জি নিয়ে। সারাটা দিন ভাল কাটে। পুরুষরা তো এই মতের সঙ্গে এক বাক্যে সায় দেবেন। কিন্তু নারীরা?

তারা যে ভালবাসে না, তা নয়। কিন্তু সমীক্ষা বলছে, এমন মেয়ের সংখ্যা নেহাতই হাতে গোনা। নগণ্য। খুব কম নারীই মন থেকে মর্নিং সহবাসকে সবুজ সংকেত দেন। বেশিরভাগই এ সব পছন্দ করেন না।

একটি বিদেশি অনলাইন পোর্টাল সমীক্ষা করে এই রিপোর্ট দিয়েছে। প্রায় এক হাজার মানুষকে নিয়ে হয়েছিল এই সমীক্ষা। এর মধ্যে ৫৬ শতাংশ অংশগ্রহণকারী ছিলেন নারী। বাকি ৪৩ শতাংশ ছিলেন পুরুষ।

নারীরা বেশিরভাগই বলেছেন, তারা কখনও মর্নিং সহবাস করেননি। ৬৩ শতাংশ নারী স্বীকার করেছেন এ কথা। এদিকে পুরুষের ভোট কিন্তু এক্ষেত্রে খুব কম। মাত্র ৩৭ শতাংশ পুরুষ মর্নিং সহবাস করেননি। তাদের একটাই বক্তব্য, এতে শুধু সময় নষ্ট হয়।

কিন্তু নারীদের কাছে রয়েছে একাধিক যুক্তি। প্রায় ৫০ দশমিক ৭ শতাংশ নারীরা মুডে থাকেন না। ৩৫ দশিমিক ৬ শতাংশ নারীর কাছে মর্নিং সহবাস মানে সময় নষ্ট। আর ৩২ দশমিক ৯ শতাংশ মনে করেন, সকালে তাদের শারীরিক মিলনের এনার্জি থাকে না।

আর যারা বিষয়টি উপভোগ করেন, তারা? তাদের মতে, এই সময় সবচেয়ে ভাল সঙ্গম হয়। তার আমেজই আলাদা। ভাষায় তা বর্ণনা করা যায় না। প্রায় ৫১ শতাংশ পুরুষের এটাই মত।

কিন্তু মাতের ২০ শতাংশ নারী এই মতকে সমর্থন করেছেন। নিত্য তারা মর্নিং সহবাস করেন বলেও জানিয়েছেন। এর অনুভূতি একেবারে আলাদা বলে মত তাদের।

About redianbd

Check Also

প্রায় সকল পুরুষরাই মেয়েদের এই ১০টি আচরণ ভীষণ অপছন্দ করে, সচেতন হোন!

প্রিয় পুরুষকে খুশি করতে কত কিছুই না করে থাকেন নারীরা। পছন্দের সাজসজ্জা, সুন্দর পোশাক, আন্তরিক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.