দীর্ঘদিন ফেসবুকে সম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও সামনে একে অপরকে দেখে অজ্ঞান দুজনেই…

বর্তমান যুগে যুবক যুবতিদের আলাপ তারপর বন্ধুত্ত করার জন্য ফেসবুক হল একটি দারুন মাধ্যম। সহজেই সেখানে দুটি অজানা অচেনা ছেলে ও মেয়ে নিজেদের মধ্যে আলাপ পরিচয় বাড়ায়। অনেকে তো আলাপ বন্ধুত্তের পর প্রেমেও পরে যায়।

একে অপরকে না দেখেই “তুমি আমার জান, তুমি আমার সোনা” থেকে শুরু করে বেবি প্ল্যানিং পর্যন্ত এগিয়ে যায় ফেসবুকেই। একে অপরকে সামনে কবে দেখবে তা নিয়ে হাঁ-হাপিত্যাস করে। এমনই এক ঘটনা আজ জেনে নেবো আমরা।

দীর্ঘদিন ফেসবুকে সম্পর্ক থাকা সত্ত্বেও সামনে একে অপরকে দেখে অজ্ঞান দুজনেই। কি অবাক হলেন তো? যত পরবেন ততই অবাক হবেন। আসুন জেনে নেওয়া যাক পুরো বিষয়টি।

ভারতের মধ্যেই ফেসবুকের মাধ্যমে আলাপ হয় এক যুবক ও যুবতীর। আজকাল এই ব্যাপারটি নতুন কিছু নয়। কারন আজকালকার ডেটে এসব হয়ে গেছে খুবই কমন একটি ব্যাপার। কিন্তু মজার ব্যাপার হচ্ছে এটাই দুজনেই খুলেছে ফেক আইডি।

ফেক আইডির মাধ্যমেই আলাপ হয় এদের। উদ্দেশ্য ছিল একটাই, নতুন নতুন বন্ধু পাতানো। টুক টাক সাধারন কথা দিয়েই শুরু হয় প্রথমে। তারপর ধিরে ধিরে বাড়তে থাকে আলাপ পরিচয়। তারপর নিজেদের মনের কথা, একা থাকার কারন গুলি শেয়ার হতে থাকে।

মতে মিল পাওয়াতে একে অপরের আরও কাছাকাছি আসতে শুরু করে তারা। গিটার বাজতে শুরু হয়ে যায় তাদের মনের ভেতরে। আরও কাছা কাছি, আরও কাছে এসো গান শুরু হয়ে যায়। দূরত্ব কি আর সয়? হার্ট বিট বাড়তে থাকে।

উত্তেজনায় কেঁপে ওঠে শরীর ও মন। টক বক করে ফুটতে থাকে রক্ত। আর পেড়ে ওঠে না তারা। পাগল হয়ে যায় একে অপরকে দেখবে বলে। কিন্তু সামনে একে অপরকে দেখতেই দুজনেই পরেন আকাশ থেকে। সামনে দেখে দুজনেই ভাবে এ কাকে দেখছি? কি দেখছি?

সামনে গিয়ে দেখে তারা আসলে স্বামি ও স্ত্রী। শুরু হয়ে যায় ঝগড়া ও মারপিট। প্রায় পুলিশ চলে আসার মত হয়ে যায় অবস্থা। তারপর হয়ে যায় লোক জড়ো। অনেক কষ্টে সব ছাড়িয়ে ঠিক করা হয় সব কিছু। তারপর কি হয় এখনও অজানা।

About redianbd

Check Also

পৃথিবীর সবচেয়ে দামি ও সুস্বাদু ফল ইউবারি মেলন

জাপানে এক সুস্বাদু ফল পাওয়া যায়। যার নাম ইউবারি মেলন ( তরমুজ )। এ ফল …

Leave a Reply

Your email address will not be published.