বড় দাঁড়ি রাখায় চাকরি গেলো মুসলিম পুলিশের কর্মকর্তা

দাড়ি রাখার অ’পরাধে ASI মোহাম্মদ কে আনোয়ার কে তা’ড়িয়ে দিল জলপাইগুড়ির থানার ASI দীপঙ্কর গোস্বামী। জানা যায় মোহাম্মদ কে আনোয়ার আর্মড ফোর্সের ASI ছিলেন। মুখমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নিরাপত্তার কারণেই তাঁকে তা’ড়িয়ে দেওয়া হয় বলে জানায় ASI দীপঙ্কর গোস্বামী। এতদিন দাড়ি রেখে পুলিশে কাজ করছিলেন আনোয়ার। আজ হঠাৎ তাঁকে তাড়িয়ে দেওয়া নিয়ে বহু প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হচ্ছে পশ্চিমবঙ্গের পুলিশ ডিপার্টমেন্টকে।

জানা যায়, গতকাল দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির নিরাপ’ত্তার দায়িত্ব পালনের জন্য বীরভূম থেকে এসেছিলেন উত্তরকন্যায় এসেছিলেন আর্মড ফোর্সের ASI মোহাম্মদ কে আনোয়ার। সেসময় তাঁর মুখে গাল ভর্তি দাড়ি দেখে তাঁকে অ’স্বাভাবিক লাগে জলপাইগুড়ি থানার ASI দীপঙ্কর গোস্বামীর।

পুলিশ কর্মীদের দাবি, ASI আনোয়ার কে তাঁদের স্বাভাবিক লাগছিল না। মুখ্যমন্ত্রীর কনভয় বেরিয়ে পড়ার কারণে দ্রুত সিদ্ধান্ত নিয়ে আনোয়ারকে এলাকা ছেড়ে চলে যেতে নির্দেশ দেয় দীপঙ্কর গোস্বামী। এর পরেই প্রশ্ন উঠছে তাঁকে যদি অ’স্বাভাবিক লাগে তাহলে আ’টক করা হলো না কেন? দাড়ি রাখা নিয়ে পুলিশের নিয়মাবলী অনেক আছে।

পুলিশ কর্মীদের পরিচ্ছন্নতা বজায় রাখার জন্যে কর্মরত অবস্থায় তাঁদের দাড়ি রাখার নিদান নেই। অসুস্থতা ছাড়া পুলিশ কর্মীদের দাড়ি রাখা যায়না। এখানেই প্রশ্ন উঠছে, তাহলে এতদিন এত বড় দাড়ি কিভাবে রাখলেন?এতদিন কারো নজরে আসেনি কেন? আজ হঠাৎ এমন সিদ্ধান্ত কেন?

যদিও এবিষয়ে তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন ADG আই’নশৃঙ্খলা অনুজ শর্মা। উল্লেখ্য, শিখ ধর্মা’লম্বী ছাড়া কোনো ধর্মের মানুষদের দাড়ি রাখার নির্দেশ নেই। এর আগেও দাড়ি রাখা নিয়ে শীর্ষ আদালতেও অভিযোগ উঠল, শীর্ষ আদালত পুলিশের নিয়মাবলী অনুসন করার নির্দেশ দিয়েছিল।

About redianbd

Check Also

আবারও সেই মাছ, জাপান জু’ড়ে সু’নামির আত’ঙ্ক!

একটি বি’রল প্র’জাতির মাছ দে’খে জাপানের মানুষ আ’তঙ্কিত হয়ে প’ড়েছে। তারা মনে ক’রে ওই মাছ-ই …

Leave a Reply

Your email address will not be published.